Mahfuzur Rahman Manik
সালতামামির বাইরের দিন
ডিসেম্বর 28, 2016

saltamamiসাল ও তামামি দুটি শব্দ মিলে সালতামামি। শব্দ দুটি ফার্সি ভাষা থেকে এসেছে। সাল মানে বছর আর তামামি হলো সমাপ্তি। বছরের আলোচিত বা উল্লেখযোগ্য ঘটনা নিয়ে করা হয় সালতামামি। ২০১৬ সাল শেষ হয়ে আসছে। বছরটিকে ঘিরে ইতিমধ্যে অনেকে নানা সালতামামি তৈরি করেছে। আবার অনেকে করছে। সংবাদমাধ্যমগুলোই সাধারণত সালতামামি তৈরি করে। তবে সামাজিক যোগাযোগ ওয়েবসাইট যেমন ফেসবুকেও এর আদলে দেখা যায় ইয়ার ইন রিভিউ। সালতামামিতে পুরো বছরের ঘটনা থেকে বাছাই করে কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় তুলে ধরা হয়। কিংবা এক নজরে বছরের পুুরো বছরের ঘটনাপ্রবাহ সামনে নিয়ে আসা হয়। লক্ষণীয় বিষয় হলো, সালতামামি প্রকাশের সময় বছরের শেষ মাস ডিসেম্বর শুরু হতেই এর তোড়জোড় দেখা যায়। ডিসেম্বরের মাঝামাঝি সময় থেকে বছরের শেষ দিন পর্যন্ত সাধারণত সালতামামি প্রকাশ হয়। অনেকক্ষেত্রে পরের বছরের শুরুতেও সালতামামি প্রকাশ হয় বটে, কিন্তু তা কম। তখন নতুন বছরের প্রত্যাশা, কেমন যাবে এ বছর_ এ রকম ভবিষ্যতের বিষয় প্রাধান্য পায়। ফলে দেখা যাচ্ছে, সালতামামি পুরো বছরের হলেও আসলে কিছু দিন বাইরেই থেকে যাচ্ছে। ধরা যাক, ডিসেম্বরের ১৫ তারিখ কোনো সংবাদপত্র প্রকাশ করল, ফিরে দেখা প্রযুক্তির এক বছর। তাতে স্বাভাবিকভাবেই ১৬ দিন বাইরে থেকে যাচ্ছে আর ওই সালতামামি তৈরি করতে একদিন লাগলেও ১৭ দিন বাদ পড়ছে। একইভাবে আগে প্রকাশ হলে দিন সংখ্যা বাড়বে, পরে হলে কমবে। এটা কেবল আমাদের দেশেই, আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমেও দেখা যায়। যেমন বিবিসি সোমবার প্রকাশ করেছে (২৬ ডিসেম্বর) আর্টস অ্যান্ড কালচার স্টারস হু ডাইড ইন ২০১৬ অর্থাৎ ২০১৬ সালে শিল্প-সংস্কৃতির যেসব তারকা মৃত্যুবরণ করে। এ তালিকায় অবশ্য ২৫ ডিসেম্বর মারা যাওয়া জর্জ মাইকেলেরও বিস্তারিত এসেছে। কথা হলো এর পরের কয়েক দিনে এমন কেউ মারা গেলে কী হবে। এখানে অবশ্য একটা ব্যাপার রয়েছে। অনলাইনে প্রকাশ হলে তা সঙ্গে সঙ্গে আপডেট করার সুযোগ রয়েছে। কিন্তু সংবাদপত্রের প্রিন্ট ভার্সনে প্রকাশ হলে কিংবা প্রতিবেদনটি টিভি চ্যানেলে প্রচার হয়ে গেলে পুনরায় প্রকাশ হওয়ার সুযোগ থাকছে না। সে ক্ষেত্রে হয়তো গুরুত্বপূর্ণ বিষয় বাদ পড়তে পারে। তাহলে সালতামামি কবে প্রকাশ হওয়া উচিত কিংবা কেন বছর শেষ হওয়ার কয়েক দিন আগেই প্রকাশ হচ্ছে_ এ প্রশ্ন ওঠা স্বাভাবিক। এর উত্তরও নিশ্চয়ই আছে। প্রথমত, সালতামামিতে বিশেষ করে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলোই ওঠে আসে, এ রকম বিষয়ে শেষ ক'দিনে ঘটতে পারে বটে। তারপরও পাঠক হয়তো বছরেরটা একটু আগাম চাইবেন কিংবা এ বছরের ঘটনা এ বছরেই সবার আগ্রহ থাকবে, সেদিক থেকে একটু আগেই সালতামামি করা। আবার এও হতে পারে, বাকি থাকা দিনগুলো গোটা বছরের তুলনায় সামান্য, শেষ ১৫-২০ দিনের december-calendar-2016-wallpaper-1মধ্যে যা-ই ঘটুক সেটা পাঠকের মনে থাকবে। কিন্তু ৩-৪ মাস বা ৯-১০ মাস আগে যেটা ঘটে গেছে তা হয়তো অনেকেই ভুলে যান। আসলে মনে করিয়ে দেওয়াই তো সালতামামির কাজ। বলা বাহুল্য, তারপরও বাদ পড়া দিনগুলোর গুরুত্ব অবশ্যই আছে। ১০ বছর পর কোনো পাঠক যদি নির্দিষ্ট বছরের সালতামামি পেয়ে তিনি ডিসেম্বরের ২৭-২৮ তারিখের গুরুত্বপূর্ণ কোনো বিষয় না পান, তাতে তিনি প্রতারিত বোধ করতে পারেন। এ জন্য সংবাদপত্রের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সালতামামি বোধ হয় বের হওয়া উচিত বছরের শেষ দিন, যাতে অন্তত আগের দিনের সে রকম কোনো ঘটনাও বাদ না যায়। আর বছরের শেষ দিনের ঘটনা তো নতুন বছরের সংবাদপত্রেই পাওয়া যাবে।

ট্যাগঃ , , ,

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।