Monthly Archives: মে ২০১৫

‘সিগারেট-ফ্যাশন’ চাই না

Cigarette-life-burningযেখানে সিগারেট অনেকের কাছে ফ্যাশন হিসেবে গণ্য হয়; যেখানে বেশি দামের সিগারেট আভিজাত্যের পরিচায়ক; যেখানে সিগারেট আধুনি‌‌‍কতা বা স্মার্টনেস প্রকাশ করে; কিংবা অর্থমন্ত্রীর ভাষায়, যেখানে সিগারেট বিনোদনের মাধ্যম; সেখানে তামাকমুক্ত দিবস বড় অসহায়। এই অসহায়ত্বের কাছে আজকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু) কর্তৃক প্রণীত দিবসটির প্রতিপাদ্য, ‘তামাকের অবৈধ বাণিজ্য বন্ধ কর’ ধোপে টিকে না। তারপরও বিষয়টি যখন মানুষের স্বাস্থ্যের জন্য হুমকিস্বরূপ তখন হু’র মতো সংগঠনের এ নিয়ে কথা বলার বিকল্প কী। সংস্থাটি প্রতিবছরই এর ঝুঁকি সম্পর্কে নানা তথ্য প্রকাশ করে। যেমন_ প্রতিবছর বিশ্বে ৬০ লাখ মানুষ ধূমপানের কারণে মারা যায়। এর মধ্যে ছয় লাখ আবার পরোক্ষ ধূমপায়ী। তা ছাড়া প্রায় সবাই তো জানেন, ক্যান্সারসহ নানা রোগের উৎস সিগারেট। এরপরও কিন্তু সিগারেট খাওয়া কমছে না। এমনকি এর বিরুদ্ধে নানা সময়ে নানা পদক্ষেপ নেওয়ার পরও নয়। Continue reading

চলমান জীবনের ভাসমান গল্প

Life-roleটাইমস অব ইন্ডিয়ার ব্লগে সম্প্রতি নিনা সুদ লিখেছেন, লাইফ মাস্ট গো অন। অবশ্য কেউ লিখুক আর না-ই লিখুক, এটাই বোধহয় নিয়ম_ জীবন চলমান। কারও কিংবা কোনো কিছুর জন্য জীবন থেমে থাকে না। হয়তো নানা সময়ে জীবনের নানা গতিপথ তৈরি হয়; হয়তো নানা ঘটনা জীবনে দাগ কেটে যায়; হয়তো কিছু বিষয়ে জীবনের অপ্রাপ্তি থাকে; হয়তো চাওয়া-পাওয়ার মাঝে ব্যাপক ফারাক সৃষ্টি হয়; তারপরও জীবন চলে যায় জীবনের পথে। এ পথে ছিটকে পড়ার দৃশ্য কিংবা উদাহরণ ব্যতিক্রম।
কাউকে কেমন আছেন জিজ্ঞেস করলে খারাপের চেয়েও বেশি উত্তর আসবে, ভালোই আছি। কোনো কারণে দীর্ঘশ্বাস থাকলেও ভালোর কথাই বলবেন সবাই। তার চেয়েও বড় কথা হলো, মানুষের স্বপ্ন। এ স্বপ্নই বোধহয় বেঁচে থাকার সবচেয়ে বড় প্রেরণা। মানুষ যত কষ্টেই থাকুক, ভাবে একদিন তার অবস্থার পরিবর্তন হবে। বাঁধা অবস্থায় সবচেয়ে অসহায় মানুষটিও বলবে, ‘ছাড়া পেয়ে নিই, তখন দেখাব মজা।’ Continue reading

মানি ছাড়া মানিব্যাগ!

Moneybagনিত্যদিনের সঙ্গী মানিব্যাগে অনেকের এখন তেমন টাকা থাকে না। এমন নয় যে বেশি টাকার লেনদেন হয় না। এমনও নয় যে অনেক টাকা নেই। তারপরও টাকার থলে মানিব্যাগটা যে দিনে দিনে টাকার বদলে বরং অন্যান্য বস্তু বাহনের উপকরণ হয়ে উঠেছে তা ২৭ এপ্রিল প্রকাশিত বিবিসি টেকনোলজির ‘স্মার্ট কার্ড ইজ ওয়ালেট রিপ্লেসমেন্ট’ প্রতিবেদনটি দেখে মনে হওয়াই স্বাভাবিক। এখন কারও মানিব্যাগে টাকা আছে কি নেই তার চেয়েও বড় প্রশ্ন বোধ হয় ক্রেডিট কার্ড আছে কি-না। একই সঙ্গে বলা যায় মোবাইল আছে কি-না। কারণ অনেকের মানিব্যাগের টাকা যে এখন ভাগাভাগি হয়ে ব্যাংক ও মোবাইলে থেকে যায়।
মানিব্যাগে টাকা রাখার প্রয়োজন হয় বিশেষত নগদ লেনদেনে। ব্যাংকে যারা লেনদেন করেন আগে তাদের একসঙ্গে অনেক টাকা উঠিয়ে রাখতে হতো। ব্যাংকে লাইনে দাঁড়িয়ে চেক দিয়ে বারবার টাকা উঠানো অনেকের পক্ষেই অসম্ভব। Continue reading