Monthly Archives: আগস্ট ২০১৪

অপহৃতের পরিবারের অপেক্ষা

Abduction-bd‘মানবাধিকার’ সৃষ্টির সেরা মানুষের শ্রেষ্ঠত্বেরই নিদর্শন। প্রত্যেক মানুষের রাষ্ট্রীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত কিছু অধিকার রয়েছে। আমাদের সংবিধানের তৃতীয় ভাগে এসব মৌলিক অধিকারের নিশ্চয়তা দেওয়া হয়েছে। মানুষ হিসেবে আপনার চিন্তার স্বাধীনতা আছে, কথা বলার স্বাধীনতা আছে, আছে পেশাবৃত্তির স্বাধীনতাও। স্বাধীনভাবে চলাফেরাও আপনি করতে পারবেন। আপনি নিজে কোথাও গিয়ে হারিয়ে যেতে পারেন। কিন্তু যখনই আপনাকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে কেউ নিয়ে যাবে তখনই সেটা হবে মানবাধিকারের লঙ্ঘন। সে অবস্থাকেই বলা হয় গুম বা অপহরণ। এটা মানবাধিকারের কতটা লঙ্ঘন অপহরণের শিকারদের নিয়ে জাতিসংঘের ‘ইন্টারন্যাশনাল ডে অব দ্য ভিকটিমস অব এনফোর্সড ডিসঅ্যাপিয়ারেন্সেস’ তার প্রমাণ। Continue reading

অন্ধকারের অপেক্ষা!

India-Toiletমানুষের পাঁচটি মৌলিক চাহিদার মধ্যে সরাসরি টয়লেটের কথা নেই। তবে বেঁচে থাকার জন্য টয়লেটও যে আবশ্যক তা বলার অপেক্ষা রাখে না। সরাসরি বলা না হলেও মানুষের বাসস্থানের মধ্যে বিষয়টা চলে আসে। আবার খাদ্য গ্রহণের সঙ্গেও রয়েছে এর প্রত্যক্ষ সম্পর্ক। সুস্থ প্রত্যেককেই দিনে অন্তত একবার প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে হয়। তাই মানুষ থাকার জায়গার সঙ্গে শৌচকার্য সম্পাদনের বিষয়টিরও ব্যবস্থা করেন। এর বিপরীত চিত্র এখন ব্যতিক্রম। টয়লেট নেই, খোলা জায়গায় প্রাকৃতিক কর্ম সারেন_ এ রকমটা অনেকে কল্পনাও করতে পারেন না। আমাদের প্রতিবেশী ভারতে অবশ্য টয়লেট সমস্যা এখনও প্রকট। মঙ্গলবার (১৯ আগস্ট,২০১৪) বিবিসির একটি প্রতিবেদনেও বিষয়টি এসেছে। ‘ইন্ডিয়া ব্রাইডস লিভ হাজব্যান্ডস হোমস ফর ল্যাক অব টয়লেটস’ শিরোনামই তা স্পষ্ট করছে। ভারতের উত্তর প্রদেশের ছয়জন নতুন বিবাহিত স্ত্রী টয়লেট না থাকার কারণে স্বামীর বাড়ি ত্যাগ করে বাবার বাড়ি চলে গেছেন। Continue reading

পরিবর্তন সংজ্ঞাতেও!

changingeverything500সময়ের সঙ্গে প্রতিনিয়ত সবকিছু পাল্টাচ্ছে। মানুষ সবসময়ই নিজেকে পরিবর্তিত অবস্থার সঙ্গে খাপ খাওয়ানোরা চেষ্টা করেছে। মানুষের চলাফেরা, জীবনাচরণ, খাদ্যাভ্যাস, ভাষা, আয়-রোজগারের পথ-পদ্ধতি ইত্যাদি সবকিছুতে এ পরিবর্তন দৃশ্যমান। মানুষের সঙ্গে সঙ্গে সমাজও পরিবর্তন হয়, পরিবর্তন হয় রাজনীতি, অর্থনীতি, কূটনীতি। সম্প্রতি ভারতের দি হিন্দু পত্রিকার সানডে ম্যাগাজিনে শিব বিশ্বনাথন ‘সোসাইটি : নিউ ডেফিনেশনস’ ফিচারে পরিবর্তিত অবস্থার নতুন সংজ্ঞা খুঁজেছেন। তিনি অবশ্য সমাজের কথা বললেও আসলে মানুষের জীবনঘনিষ্ঠ সব বিষয়ই এখানে আসবে। সমাজ বোঝার জন্য ভাষা গুরুত্বপূর্ণ। মানুষের শব্দ চয়ন, কথা বলার ধরন বদলে যাওয়ার দৃশ্য আমাদের চোখের সামনেই দেখছি। Continue reading

অতঃপর বামনদেরই জয়!

The researchers' punchiest proposal is 'making humans smaller'
লম্বা হতে কে না চায়! চেষ্টা-তদবির করেও অনেকে লম্বা হয় না। বেঁটে-বামনদের বিড়ম্বনার শেষ নেই। ক্লাসের লম্বা ছাত্রটি প্রায়ই তার চেয়ে খাটো বন্ধুকে টেনে এনে মেপে কী আহ্লাদই না প্রকাশ করে! অন্যদিকে বন্ধুটির আফসোসের সীমা থাকে না। হয়তো ভাবে, সে-ও একদিন লম্বা হবে। কাজের জন্য কাউকে বাছাই করতে হলে লম্বা-ই সই। বিয়ের বাজারে লম্বার দর অনেক। চাকরিতেও অনেক ক্ষেত্রে লম্বারই জয়। কাউকে পছন্দ করার ক্ষেত্রে চাই লম্বা মানুষ। এমনকি প্রত্যেক মা-বাবাও হয়তো চায় তার সন্তানটি লম্বা হবে। বামন কেউ ওপরের দিকে তাকালেও দোষ। সবাই যেন তাকে বলছে_ ‘বামন হইয়া চাঁদের দিকে চাস?’ লম্বার কদরে বামনদের যখন মরি মরি অবস্থা তখন বিজ্ঞানীরা কিছুটা হলেও স্বস্তির বিষয় আবিষ্কার করলেন। মঙ্গলবার গার্ডিয়ান অনলাইনের শিক্ষা বিভাগে প্রকাশিত ‘সলভ ক্লাইমেট চেঞ্জ… মেক পিপল স্মলার‘ শিরোনামের গবেষণা প্রতিবেদনটি সেই বামন হওয়ার পরামর্শই দিচ্ছে! Continue reading