Monthly Archives: ফেব্রুয়ারি ২০১৪

রক্ষণশীলতার বিরুদ্ধে মাওলানা আজাদ

Abul Kalam Azadএস. ইরফান হাবিব

১৯৫৮ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি দুনিয়া থেকে চিরদিনের জন্য বিদায় নেন ভারতবর্ষের অন্যতম স্বাধীনতা সংগ্রামী, ইন্ডিয়া উইনস ফ্রিডম এর লেখক মাওলানা আবুল কালাম আজাদ। এটি কেবল অসাধারণ মানবিকতাসম্পন্ন একজন ব্যক্তিত্বের মৃত্যুই ছিল না। বরং এর মাধ্যমে একটি স্বপ্নেরও মৃত্যু ঘটে। অবিভক্ত ভারতে সংখ্যাগরিষ্ঠ হিন্দুদের সঙ্গে মুসলমানরা শান্তিতে বসবাস করতে পারবে, এ ধরনের একটি স্বপ্ন কয়েক দশক ধরেই দেদীপ্যমান ছিল। শত শত বছর আগে মুসলমানরা ভারতে তাদের আবাসস্থল গড়েছিল এবং এ  দেশকে তাদের নিজেদের দেশ মনে করত। মাওলানা আজাদের মতে, ভারতের বিভিন্ন ক্ষেত্রে তাদের অবদান ছিল অবিস্মরণীয়। যদিও ১৯৪৭ সালে ভারত বিভক্তির মাধ্যমে মাওলানা আজাদের স্বপ্নের মৃত্যু ঘটে। এরপরও আজাদ আরও দশ বছর বেঁচে ছিলেন। সে সময় তিনি নতুন ভারতের ক্ষত নিরাময় এবং দেশটিকে নতুনভাবে সাজানোর জন্য চেষ্টা করেছিলেন।
মাওলানা আজাদের এক জীবনে অনেক স্বপ্ন ছিল। তার কিছু কিছু সবাই জানে আর কিছু স্বপ্ন এখনও রহস্যজনকভাবে অজানা। এসবের কমই বলা চলে জানা গেছে কিংবা লিখিত হয়ে মানুষের সামনে এসেছে। Continue reading

ইন্টারনেটে দেখি বাংলা

Bangla-internetইন্টারনেটে প্রবেশ করলে আমরা এখন সহজেই বাংলা দেখি। ফেসবুকে বাংলায় স্ট্যাটাস দেখা যায় অহরহ। বাংলা ব্লগ ও সংবাদপত্রের ওয়েবসাইট তো আছেই, ই-মেইল আদান-প্রদানেও অনেকে বাংলা ব্যবহার করেন। গুগলের মতো সার্চ ইঞ্জিনগুলোতে বাংলায় খোঁজ করলে এখন যথেষ্ট তথ্য পাওয়া যায়। ইন্টারনেট সংশ্লিষ্ট ওয়েবসাইটগুলোও বাংলাকে গুরুত্ব দিচ্ছে; ফলে সেখানেও বাংলা দেখা যাচ্ছে। গুগলে যেমন বাংলায় আলাদাভাবে রয়েছে google.com.bd একইভাবে ফেসবুকেও বাংলায় ভাষান্তরের কাজ চলছে; চাইলে যে কেউ বাংলায় স্ট্যাটাস, নোট লেখার বাইরেও ফেসবুকের অপশনগুলো বাংলায় পেতে পারেন। এ ছাড়া তথ্যের জন্য রয়েছে বাংলা উইকিপিডিয়া। Continue reading

সংকটে ভারতীয় গণতন্ত্র

Indiaপ্রতিদিনই সংসদে আমাদের সাংসদরা কোনো না কোনো চমক দেখাচ্ছেন। আসলে তারা কমই ধৈর্যশীল। সাধারণত সংসদে হাঙ্গামা দেখতেই আমরা অভ্যস্ত। আমরা অত্যন্ত বিরক্তিকরভাবে দেখলাম মান্যবর ব্যক্তিরা উচ্চ চিৎকারের পাল্লা দিচ্ছেন। অতঃপর মহান সংসদকে কলঙ্কিত করছেন। এর মাধ্যমে করদাতাদের কত টাকা যে জলে গেছে তা বলাই বাহুল্য।
আমরা দেখলাম অর্থহীন শত্রুতার জেরে আমাদের নির্বাচিত প্রতিনিধিদের দ্বন্দ্বের ফলে কীভাবে গুরুত্বপূর্ণ বিলেরও দফারফা হয়ে যায়! আমরা এও দেখলাম, ক্ষুদ্র স্বার্থের ওপরে উঠে জনগণের জন্য কোনো কিছু করা তাদের পক্ষে কত কঠিন। অথচ এই মানুষদের প্রতিনিধিত্বই তারা করছেন। নির্বাচনের সময় ভোটের জন্য তারা এই জনগণের কাছেই যান। Continue reading

ফেসবুকময় ইন্টারনেট

facebook-ব্যবহারফেসবুক আর ইন্টারনেটের মধ্যে সম্পর্ক কী? সাধারণভাবে দেখলে ফেসবুক ইন্টারনেটের ওপর নির্ভরশীল। ইন্টারনেট ছাড়া ফেসবুক অচল। ফলে কম্পিউটার, ল্যাপটপ, মোবাইল ইত্যাদি ডিভাইসে ইন্টারনেট সংযোগ থাকলেই কেবল ফেসবুক ব্যবহার করা সম্ভব। অর্থাৎ কেউ ফেসবুক ব্যবহার করতে চাইলে প্রথমেই তাকে ইন্টারনেটের কথা চিন্তা করতে হবে।
তবে এটা বলাও হয়তো ভুল হবে না, ফেসবুক সবসময় ইন্টারনেটের ওপর নির্ভরশীল নয়। মোবাইল অপারেটরগুলোর নানা অফারের খবর রাখেন এমন সবাই জানেন, এখন মোবাইলে ইন্টারনেট ছাড়াই ফেসবুক ব্যবহার করা যায়। মেসেজের মাধ্যমেই বিভিন্ন অপারেটর তার গ্রাহকদের ফেসবুক ব্যবহারের সুবিধা দিচ্ছে। Continue reading